প্রযুক্তি

আগামী বছর চালুকৃত ফাইভ- জি ব্যাবস্থায় বেশি প্রাধান্য পাবে শিল্পখাত

আগামী বছর মার্চ মাসে যে ফাইভ-জি ব্যাবস্থা চালু হচ্ছে সেখানে ব্যাক্তিগত ব্যাবহারের চেয়ে শিল্পখাতে বেশি গুরুত্ব দিচ্ছে সরকার। অপারেটররা বলছেন, শিল্প খাতের উদ্যোক্তারা ফাইভ-জি প্রযুক্তি ব্যাবহারের জন্য প্রস্তুত নয়।

নতুন বছরেই সারা দেশজুরে এই ব্যাবস্থা চালুর পরিকল্পনা রয়েছে। বিআরটিসির তথ্যানুযায়ী, ফোর-জি নেটওয়ার্ক ডাটা ট্রান্সফার বা ভিডিও স্ট্রিমিং এর জন্য যথেষ্ট। ব্যাক্তি পর্যায়ে নতুন প্রযুক্তি হিসেবে ফাইভ-জি ব্যাবহারের গুরুত্ব খুব বেশি নেই তবে উৎপাদন কাজে এর ব্যাবহারের গুরুত্ব রয়েছে।

তারা আরো মনে করছেন, বাংলাদেশে ফাইভ-জি এর ব্যাবহারকারীর সংখ্যা প্রত্যাশা অনুযায়ী কম হওয়াতে বানিজ্যিক ব্যাবহারের সুযোগ ও কম।

সরকারের পরিকল্পনা মতে শুরুতেই ফাইভ-জি ব্যাবহারের খাতগুলো হবে শিল্প,কৃষি, শিক্ষা ও চিকিৎসা খাত। এর মধ্যেই কিছু শিল্প প্রতিষ্ঠান কাজ কিরা শুরু করে দিয়েছে। তবে ২০২৫-২৬ সাল নাগাদ এর সম্পূর্ণ সুবিধা পাবে জনগন।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button