ব্যাংকিংই-কমার্স

এবি ব্যাংক ডুয়েল কারেন্সি ডেবিট কার্ড কিভাবে পাওয়া যাবে?

এবি ব্যাংক ডুয়েল কারেন্সি ডেবিট কার্ড বাংলাদেশে নিয়ে এল এক নতুন মাত্রা। ডুয়েল কারেন্সি ৳ ডেবিট কার্ডে এখন দেশের বাইরে হবে ভ্রমণ, হজ্জ্ব, শপিং, মেডিক্যাল, শিক্ষা ইত্যাদি স্বাচ্ছন্দ্যে ও নির্ভাবনায়।

এবি ব্যাংক ডুয়েল কারেন্সি ডেবিট কার্ড ( AB Bank )

যারা স্টুডেন্ট একাউন্ট খুলার চিন্তাভাবনা করছেন তারা চাইলেই এবি ব্যাংকে একাউন্ট খুলতে পারেন। তাদের প্রত্যেকটা সার্ভিস ফ্রি।

এছাড়া যারা ফেইসবুক বুস্টিং, ইউটিউব বুস্টিং বা বিভিন্ন বুস্টিং যেমন ই-কমার্স সাইটের জন্য বুস্টিং করতে চান বা যাদের ডুয়েল কারেন্সি কার্ডের দরকার আছে। যারা ফ্রিতে ইন্টারন্যাশনাল মাস্টার কার্ড বা ভিসা কার্ড বা ফ্রি ডুয়েল কারেন্সি কার্ড খুঁজেন তাদের জন্য এবি ব্যাংকের ডুয়েল কারেন্সি ডেবিট কার্ড সৃষ্টি করেছে এক যুগোপযোগী সুযোগ। কিভাবে খুব সহজে ফ্রিতে এবি ব্যাংক ডুয়েল কারেন্সি ডেবিট কার্ড টি পেতে পারেন তা নিয়ে আলোচনা করা হলো।

একাউন্ট করা না করা আপনার ব্যাপার কিন্তু এখানে কি কি সুবিধা পাওয়া যাচ্ছে তা নিয়ে আলোচলা করা হলো।

এবি ব্যাংকে স্টুডেন্ট একাউন্ট

এবি ব্যাংকে স্টুডেন্ট একাউন্ট দুই প্রকার হয়ে থাকে।

Minor Student Account

যাদের বয়স ১৮ বছরের নিচে তারা এই একাউন্ট খুলতে পারবে। ১০০ টাকা ইনিশিয়াল ডিপোজিট করে একাউন্ট খুলা যায়। এক্ষেত্রে ডেভিড কার্ড, ইন্টারনেট ব্যাংকিং সবকিছু ফ্রি। তবে ডেভিড কার্ডটি ডুয়েল কারেন্সি না। একমাসে সর্বোচ্চ ২০০০ টাকা ট্রানজেকশন করা যাবে।

Major Student Account

যাদের বয়স ১৮ বছরের উপরে এবং ২৫ বছরের নিচে অর্থাৎ ১৮-২৫ বছর বয়সী সবাই এই একাউন্ট খুলতে পারবে। ৫০০ টাকা ও ভ্যাট ৭৫ টাকা দিয়ে মোট ৫৭৫ টাকা ইনিশিয়াল ডিপোজিট করে একাউন্ট খুলা যাবে। এতে ডেভিড কার্ডটি ডুয়েল কারেন্সি। অর্থাৎ দেশের ভিতরে ও বাহিরে উভয় স্থানে এটি কাজে লাগানো যাবে।

একাউন্ট খুলার জন্য যা যা লাগবে

একাউন্ট খুলার জন্য আপনার ৫ টি জিনিস লাগবে-
• এনআইডি কার্ড
• ছবি
• স্টুডেন্ট কার্ড
• প্রত্যয়নপত্র
• ইউটিলিটি বিল এর ফটোকপি

আর যাকে নমিনি করবেন তার শুধু ছবি ও এনআইডি কার্ড লাগবে। একাউন্ট খুলার জন্য অফলাইনে এর ব্রাঞ্চে যেতে হবে।

এর ভ্যালিডিটি হবে কার্ডটির নির্দিষ্ট মেয়াদ থাকা বা আপনার ২৫ বছর পর্যন্ত। অর্থাৎ সাধারণত ডেভিড কার্ড এর মেয়াদ থাকে ৫ বছর। কার্ডের মেয়াদ ৫ বছর হয়ে গেলে বা আপনার বয়স ২৫ বছর হয়ে গেলে একাউন্ট বন্ধ করে দেওয়া হবে। একাউন্ট বন্ধ করার ক্ষেত্রে আপনাকে জানানো হতেও পারে আবার নাও হতে পারে। আপনার একাউন্ট বন্ধ করে দিলে আপনি চাইলে এবি ব্যাংক মেজর রেগুলার সেভিং এ কনভার্ট হতে পারবেন তবে আপনার একাউন্ট নাম্বার পরিবর্তন করা হবে। আগেরটি আর থাকবে না।

ব্যালেন্স ও উইথড্রয়াল সবকিছুই ব্যাংক থেকে জানতে হবে। ডেভিড এটিএম কার্ড দিয়ে এক দিনে সর্বোচ্চ ২ লাখ টাকা তুলতে পারবেন। ২ লাখের বেশি হলে আপনি ব্যাংকের পজ মেশিন দিয়ে ৩ লাখ টাকা পর্যন্ত ট্রানজেকশন করতে পারবেন। আর যদি কারেন্সি হিসেবে ট্রানজেকশন করেন তার পরিমান হবে ৩০০ ইউএসডি ডলার।আর সিঙ্গেল ট্রানজেকশন এর ক্ষেত্রে একবারে ২০০০০ টাকা তুলতে পারবেন। ই- কমার্স সাইট থেকে আড়াই লাখ টাকা ট্রানজেকশন করতে পারবেন।

AB Bank এবি ব্যাংক ডুয়েল কারেন্সি ডেবিট কার্ড এর সুবিধা

এতে অনেক সুবিধা আছে। আপনি ফ্রিতে একাউন্ট খুলতে পারবেন। কার্ডও ফ্রি পাবেন শুধু ভ্যাট দিলেই হবে। আবার যদি কার্ডটি পাসপোর্টের সাথে এন্ড্রোস করা থাকে তাহলে দেশের বাইরে যেকোনো অবস্থায় আপনি টাকা উইথড্র করতে পারবেন। তাই আপনি দেশের বাইরে সহজেই টাকাকে ডলার এ রুপান্তর করতে পারবেন। এখানে আগে থেকে ইউএসডি লোড করে রাখতে হয় না। তাই এর অনেক সুবিধা। এর মাধ্যমে খুব সহজেই আপনি স্টুডেন্ট একাউন্ট খুলতে পারবেন।

তথ্যসূত্রঃ www.abbl.com

আরও জানতে ভিডিওটি দেখুনঃ

এবি ব্যাংকের ডুয়েল কারেন্সি ডেবিট কার্ড সম্পর্কিত বিস্তারিত ইউটিউব ভিডিও।

আরও পড়ুনঃ EBL Aqua Master Card কিভাবে পাওয়া যাবে এবং কি কি ডকুমেন্টস লাগবে?

আলেশা কার্ড কি ? যে ভাবে পাওয়া যাবে আলেশা কার্ড ! Right now.

সহজ উপায়ে অনলাইন থেকে টাকা আয় করুন ।

এবি ব্যাংক ডুয়েল কারেন্সি ডেবিট কার্ড সম্পর্কে আরও বিস্তারিত ভাবে জানতে ভিজিট করুন এবি ব্যাংকের ওয়েবসাইটেঃ https://abbl.com/ebiz/cards/debit-card/

আমাদের কন্টেন্টটি যদি ভালো লেগে থাকে তাহলে পোস্টের কেমন্ট বক্সে জানান এবং পোস্টটিতে লাইক দিন। এবি ব্যাংক সম্পর্কিত আরও কিছু জানতে চাইলে পোস্টে কমেন্ট করুন।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button