ফ্রিল্যান্সিংঅনলাইনে আয়

গেম খেলে টাকা আয় ২০২২

বর্তমান সময়ে আমরা মোবাইল দিয়ে সবাই কমবেশি গেম খেলে থাকি। যদি এই গেমগুলো হয় টাকা ইনকামের উপায় তথা গেম খেলে টাকা আয় করার মাধ্যম তাহলে আমরা দ্বিগুন লাভবান হব। একদিকে এই গেম যেমন বিনোদনের মাধ্যম হবে তেমনি টাকা ইনকামেরও পথ হবে।

বর্তমান বিশ্বের বড় বড় গেমিং কোম্পানি গুলো থেকে বিশ্ব বাজেটের সবচেয়ে বেশি লাভ্যাংশ পাওয়া যায়। ভারতের মুখেশ আম্বানীর মতে, আগামী সময়ের সবচেয়ে বড় ব্যাবসা হবে এই গেমিং কোম্পানি গুলো। টাকা ইনকামের এমন জনপ্রিয় গেম হলো ফ্রি ফায়ার ও পাবজি। যা থেকে মানুষ চাইলেই টাকা ইনকাম করতে পারে।

অনলাইন গেম খেলে টাকা আয় করতে যা লাগবেঃ

• আ্যান্ডোয়েড ফোন
• গেমিং এক্সপেরিমেন্ট
• অনলাইন গেমে এক্সপার্ট

অনলাইনে গেম খেলে টাকা আয় করতে হলে প্রথমেই আপনার লাগবে অ্যান্ড্রয়েড ফোন। আর অনলাইনে গেম খেলে টাকা আয় যত সহজেই হোক না কেন আপনাকে এই বিষয়ে থাকতে হবে অভিজ্ঞতা। আপনি যদি ভাবেন অনলাইন গেম ইনস্টল করেই টাকা ইনকাম করতে পারবেন এটি পুরো ভুল ধারণা। অভিজ্ঞতা ছাড়া কোনো কাজেই সফল হওয়া যায় না। শুধু যে গেম তা নয় অনলাইনে যেকোনো প্লাটফর্মে আপনি টাকা ইনকাম করতে যান আপনার অভিজ্ঞতা লাগবেই। অভিজ্ঞতা ছাড়া টাকা ইনকাম করা কোনোভাবেই সম্ভব না। আর আপনাকে অবশ্যই সেই মোবাইল বা অনলাইন গেমে এক্সপার্ট হতে হবে। এই বিষয়গুলো আপনি জানলেই অনলাইন গেম খেলে টাকা আয় করতে পারবেন অনেক।

অনলাইন গেম খেলে টাকা আয় করার কিছু পদ্ধতি

১. ইউটিউবার গেমার হয়ে গেম খেলে টাকা আয়

বর্তমান সময়ে ইউটিউব গেমারদের অনেক চাহিদা রয়েছে। আপনি যদি একজন এক্সপেরিয়েন্স গেমার হন তাহলে নিজের একটা ইউটিউব চ্যানেল তৈরি করে সেখানে গেমের জটিল বিষয়গুলো স্ক্রিন ভিডিও করে আপনার চ্যানেলে আপলোড দিতে পারেন। যাতে অন্যরা তা দেখে সাহায্য পেতে পারে। আবার আপনি নিজের খেলার ভিডিও আপলোড দিতে পারেন। যা থেকে আপনি টাকা ইনকাম করতে পারেন। এমন গেম হলো ফ্রি ফায়ার বা পাবজি।

আবার আপনার যে গেম গুলো সম্পর্কে ভালো ধারণা আছে সেগুলি সম্পর্কে রিভিউ দিতে পারেন বা ভিডিও গেম খেলার সময় সামনে কি আছে কিভাবে খেলতে হবে তা নিয়ে নির্দেশনা দিতে পারেন। এমন ভিডিওতে অনেক ভিউ পাবেন। তার মানে আপনি ইউটিউবার গেমার হয়ে খুব সহজে অনলাইনে টাকা ইনকাম করতে পারেন।

২. গেমিং ব্লগ বা ওয়েবসাইট তৈরি করে গেম খেলে টাকা আয়

অনলাইনে গেম খেলে টাকা আয় এর আরেকটা জনপ্রিয় উপায় হলো গেমিং ব্লগিং বা ওয়েবসাইট তৈরি। অনলাইন গেম সম্পর্কে আপনি দক্ষ হলে সেই গেম নিয়ে ফ্রি ব্লগ বা ওয়েবসাইট তৈরি করে সেখানে রিভিউ দিতে পারেন। আপনি আপনার গেমিং ব্লগে গেমের ভালো ও খারাপ উভয় দিক ফুটিয়ে তুলতে পারেন। এতে করে মানুষের উপকার হবে। তবে এই কাজটি করতে হলে অবশ্যই কন্টেন্ট রাইটিং সম্পর্কে স্বচ্ছ ধারণা থাকতে হবে। লেখাগুলো সাজিয়ে লিখতে হবে যাতে মানুষ পড়তে আগ্রহী হয়। তাহলে এভাবে ব্লগের মাধ্যমে আপনি অনলাইন গেম খেলে টাকা আয় করতে পারবেন অনেক।

৩. Twitch এ গেমিং আপলোড করে টাকা ইনকাম

Twitch হলো একটা ভিডিও শেয়ার প্লাটফর্ম। যেখানে আপনি লাইভস্ট্রিমিং ও রেকর্ড করা গেমের বিভিন্ন অংশ আপলোড করতে পারবেন। এখানে ইউটিউব এর মতো হার্ড পলিসি না থাকায় ইউটিউবের চেয়ে সহজে টাকা ইনকাম করা যায়। এখানে আপনাকে এক মাসে মিনিমাম ৭ টা ভিডিও আপলোড করতে হয়। ৫০ জন ভিউয়ার থাকলেই ভিডিও মনেটাইজ করা যায়। আর এক মাসে ৫০০ মিনিট ওয়াচ টাইম থাকলেই ভিডিও মনেটাইজ করা যায়। ভিডিও মনেটাইজ করলেই ইনকাম করা সম্ভব। এভাবে আপনি ভিডিও আপলোড করে খুব সহজেই অনলাইন গেম থেকে টাকা ইনকাম করতে পারেন।

পড়ুনঃ মোবাইলে গেম খেলে টাকা ইনকাম করার অ্যাপস

৪. ডায়মন্ড টপ আপ বিজনেসের মাধ্যমে টাকা ইনকাম

ফ্রি ফায়ার ও পাবজির মতো অনলাইন গেমে সবাই প্রায় ডাইমন্ড কিনে। এক্ষেত্রে যদি আপনি নিজেই ডাইমন্ড তপ আপের বিজনেস শুরু করে দেন তবে তা আপনার টাকা ইনকামের পথ হতে পারে। এখানে আপনি টপ আপ করে দিলে নির্দিষ্ট মুনাফা পাবেন। মানুষ যত বেশি ডায়মন্ড তপ আপ করবে আপনার তত বেশি লাভ হবে। আপনার যত বেশি কাস্টমার হনে তত বেশি লাভ বা কমিশন পাবেন। তবে যদি কাস্টমার না পান তবে আপনাকে ক্ষতির মুখে পড়তে হবে।

এক্ষেত্রে আপনি ফ্রি ফায়ারে টপ আপ করার জন্য ক্রেডিট বা মাস্টার কার্ড নিতে পারেন বা গারিনা একাউন্ট খুলে শেল নিতে পারেন। তবে সমস্যা হলো মাস্টার কার্ড বা ডেভিড কার্ডে ডলার কিনতে হয় কিন্তু বাংলাদেশে তা সহজলভ্য নয়। তাই ক্রেডিট কার্ড ব্যাংক একাউন্টের সাথে সংযুক্ত থাকলে ইন্টারন্যাশনাল কারেন্সিতে টাকা ডলারে কনভার্ট করা যাবে। ভালো পেজে আপনি ১৪০ টাকায় ১২০ শেল কিনতে পারবেন। যত বেশি শেল কিনবেন তত কম টাকা লাগবে।পরে নির্দিষ্ট আইডিতে টপ আপ করে দিন।

৫.খেলাঘর এপে গেম খেলে টাকা আয়

খেলাঘর এ্যাপ শুধু যারা ফ্রি ফায়ার বা পাবজি খেলে তাদের জন্য টাকা ইনকামের উপযুক্ত পথ। তবে অন্যান্য অনলাইন গেমারদের জন্য উপযুক্ত নয়। এখানে অনেক টুর্নামেন্ট এরেঞ্জ হয় যাতে ফি দিতে হয়। এসব ম্যাচে ভালো খেলে গেম খেলে টাকা আয় করা যায়। ভালো কিল ও উইনার প্রাইজ নিতে পারলে টাকা ইনকাম করা যায়।

৬. গেমিং টুর্নামেন্ট খেলে টাকা ইনকাম

ভিডিও গেমের টুর্নামেন্ট অনলাইনের পাশাপাশি অফলাইনেও হয়ে থাকে। আপনি যদি খুব ভালো অনলসিন গেমার হয়ে থাকে তাহলে অনলাইনে ফি জমা দিয়ে আপনি টুর্নামেন্ট খেলতে পারবেন ও টাকা ইনকাম করতে পারবেন। তবে অবশ্যই টুর্নামেন্টে জিততে হবে। আপনি যত বেশি জিততে লারবেন তত বেশি টাকা ইনকাম হবে।

আরও পড়ুনঃ সহজ উপায়ে অনলাইন থেকে টাকা আয় করুন ।

৭.গেম টিসার হয়ে টাকা ইনকাম

কোনো একটা গেম চালু হওয়ার সময় এর সম্পর্কে যথেষ্ট জ্ঞান রাখতে হবে। কারণ গেম কোম্পানির এমন একজনের দরকার হয় যে গেমের ত্রুটিগুলো ধরে দেয় ও সমাধানের পথ বলে দেয়। তবে যে কেউ চাইলেই গেম টিসার হতে পারবেন না। গেম টিসার হতে গেলে গেম সম্পর্কে দক্ষ হতে হবে গেম নিয়ে সঠিক ধারণা থাকতে হবে। গেমগুলোর ফিচার কেমন, কিভাবে খেলতে হয় এসব জানতে হবে। এটি এক প্রকার ফ্রিল্যান্সিং। এই উপায়েও আপনি অনলাইন গেম খেলে টাকা ইনকাম করতে পারেন।

তার মানে এই উপায়গুলো দিয়ে খুব সহজেই অনল্লাইন গেম থেকে টাকা ইনকাম করতে পারেন খুব সহজেই। এই মাধ্যম ব্যাবহার করে কেউ কেউ মাসে এক লাখ পর্যন্ত টাকা ইনকাম করে। আপনি খুব বেশি সময় না দিলেও যা ইনকাম করবেন তা থেকে মাসে আপনি আপনার মোবাইল রিচার্জ, হাত খরচ চালাতে পারবেন। যা আপনার পড়ার পাশাপাশি বাড়তি ইনকামের পথ তৈরি করে দিবে। আশা করি এই উপায়গুলো ব্যাবহার করে আপনি অনলাইন গেম খেলে টাকা আয় করে সুফলদায়ক হবেন।

Related Articles

Back to top button