গুরুত্বপূর্ণ তথ্য সমাচার

জন্ম নিবন্ধন করার ‍উপায় / নিয়ম / প্রক্রিয়া ২০২১

এই লিখাটিতে জন্ম নিবন্ধন করার ‍উপায় / নিয়ম / প্রক্রিয়া বিশ্লেষণ করা হবে । মানুষের জন্মের পর তার রাষ্ট্রীয় স্বীকৃতির প্রয়োজন হয় । কারণ রাষ্ট্রীয় স্বীকৃতি ছাড়া রাষ্ট্র থেকে কোন প্রকার সুযোগ-সুবিধা ভোগ করতে পারে না । ( জন্ম নিবন্ধন করার ‍উপায় ) আর জন্ম নিবন্ধন সনদ হলো রাষ্ট্রের সেই স্বীকৃতি । জন্মের তথ্য আইনগত ভাবে সরকারি খাতায় নথিভুক্ত করাই হল জন্ম নিবন্ধন বা জন্ম সনদ । বাংলাদেশ সরকার বাংলাদেশে ২০০৪ সালে জন্ম ও মৃত্যু নিবন্ধন আইন প্রণয়ন করে । এ আইন অনুযায়ী বাংলাদেশের সকল নাগরিকদের জন্য জন্ম নিবন্ধন সনদ গ্রহন বাধ্যতামূলক করা হয়েছে ।

জন্ম নিবন্ধন করার সময় খুব সাবধানতা অবলম্বন করে কাজটি করতে হয় । কারণ অসাবধানতার কারণে জন্ম নিবন্ধন বাতিলও হতে পারে । যার ফলে ভবিষ্যতে কঠিন সমস্যার সম্মুখীন হতে হবে । তাই জন্ম নিবন্ধন করার ক্ষেত্রে খুব সাবধানতা অবলম্বন করাই সকলের জন্য গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। তাই সহজ ও ‍নির্ভুলভাবে জন্ম ‍নিবন্ধন করার উপায় নিয়েই থাকছে এই লিখাটি । সম্পূর্ণ লিখাটি পড়লে জন্ম নিবন্ধন এর ইতিবাচক ও নেতিবাচক দিক জানতে পারবেন ।

তাহলে চলুন জন্ম নিবন্ধন সংক্রান্ত বিস্তারিত তথ্যাদি ( অনলাইনে জন্ম নিবন্ধন করার ‍উপায়) জানা যাক ।

আরও পড়ুনঃ

ঘরে বসে টাকা ইনকাম করার কৌশল ।

অল্প পুঁজিতে লাভজনক ব্যবসা ২০২১

মোবাইল দিয়ে টাকা ইনকাম করার কৌশল।

সহজ উপায়ে অনলাইন থেকে টাকা আয় করুন ।

EBL Aqua Master Card কিভাবে পাওয়া যাবে এবং কি কি ডকুমেন্টস লাগবে?

জন্ম নিবন্ধন কেন প্রয়োজন ?

বাংলাদেশের সকল নাগরিকদের জন্য জন্ম নিবন্ধন বাধ্যতামূলক । কারণ রাষ্ট্রীয় স্বীকৃতি ছাড়া রাষ্ট্র থেকে কোন প্রকার সুযোগ-সুবিধা ভোগ করতে পারে না । আর জন্ম নিবন্ধন সনদ হলো রাষ্ট্রের সেই স্বীকৃতি । জন্ম ও মৃত্যু নিবন্ধন আইন অনুযায়ী সন্তান জন্মের ৪৫ ‍দিনের মধ্যে সন্তানের জন্ম নিবন্ধন করা বাধ্যতামূলক । সন্তানের বয়স যদি দুই বছরের বেশি হয় তাহলে জন্ম নিবন্ধন করার জন্য পিতা-মাতাকে গুণতে হবে জরিমানা ।

  • জাতীয় পরিচয় পত্র হওয়ার আগ পর্যন্ত মূলত জন্ম নিবন্ধন জাতীয় পরিচয় পত্র স্বরূপ কাজ করে ।
  • ১৮ বছরের আগে বা জাতীয় পরিচয় পত্র হওয়ার পূর্বে পাসপোর্টের জন্য আবেদনকারীকে অবশ্যই জন্ম নিবন্ধন প্রদর্শন করাতে হবে । অন্যথায় পাসপোর্টের জন্য আবেদন করা যাবে না ।
  • শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ভর্তি ও সকল একাডেমিক পরীক্ষার রেজিস্ট্রেশনের জন্যও বাধ্যতামূলক জন্ম নিবন্ধন সনদ প্রদর্শন প্রয়োজন ।
  • পাত্র/পাত্রির বয়সের প্রমান স্বরূপ বিবাহ নিবন্ধনের সময় জন্ম নিবন্ধন প্রদর্শন করাতে হয় ।
  • জাতীয় পরিচয় পত্র না থাকা স্বত্বে ড্রাইভিং লাইসেন্স তৈরীতে জন্ম নিবন্ধনরে প্রয়োজন হয় । অন্য়থায় ড্রাইভিং লাইসেন্স করা যায় না ।
  • জাতীয় পরিচয় পত্র এর জন্য আবেদন কেরতে হলে আবেদনকারীকে অবশ্যই জন্ম নিবন্ধন প্রদর্শন করাতে হয় ।

অনলাইনে জন্ম নিবন্ধন করার ‍উপায় ।

জন্ম নিবন্ধন করতে কি কি কাগজ লাগবে?

নির্দিষ্ট কিছু ডকুমেন্ট বা কাগজপত্রে প্রয়োজন হয় জন্ম নিবন্ধন করতে হলে ।

আবেদনকারীর বয়স ০ থেকে ৫ বছর হলে

১) যে হাসপাতালে জন্ম গ্রহন করেছে সেই হাসপাতালের ছাড়পত্র লাগবে । যদি বাড়িতে জন্ম গ্রহন করে থাকে সে ক্ষত্রে নিবন্ধিত নির্দিষ্ট তথ্য সংগ্রহকারী এনজিও কর্মী কর্তৃক প্রত্যয়ন পত্র লাগবে । এটাও সম্ভব না হলে সাথে সন্তানের টিকা কার্ড নিয়ে যেতে হবে ।

২) পিতা ও মাতার জাতীয় পরিচয় পত্র বা জন্ম নিবন্ধনের ফটোকপি ।

আবেদনকারীর বয়স ৫ বছরের বেশি হলে

১) এমবিবিএস ডাক্তারের প্রত্যয়ন পত্র লাগবে বয়স প্রমাণের জন্য ।

২) স্থায়ী ঠিকানার সংশ্লিষ্ট ওয়ার্ড কাউন্সিলর কর্তৃক প্রদত্ত প্রত্যয়ন পত্র ।

৩) শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের প্র‌ধান শিক্ষক বা অধ্যক্ষ কর্তৃক প্রদত্ত প্রত্যয়ন পত্র ।

৪) নিবন্ধিত নির্দিষ্ট তথ্য সংগ্রহকারী এনজিও কর্মী কর্তৃক প্রত্যয়ন পত্র ।

পিতা ও মাতার জাতীয় পরিচয় পত্র বা জন্ম নিবন্ধনের ফটোকপি ।

জন্ম নিবন্ধন করার ‍উপায় / নিয়ম / প্রক্রিয়া

২০০৪ সালে বাংলাদেশে জন্ম ও মৃত্যু আইনটি বাস্তবায়নের পর ২০১০ সাল পর্যন্ত জন্ম নিবন্ধন সনদ তৈরী করার সুযোগ দেওয়া হয়ে ছিল সম্পূর্ণ বিনামূল্যে । বর্তমানে জন্ম নিবন্ধন সনদ তৈরী করার ক্ষেত্রে কিছু ফি ধার্য করা হয়েছে । কিন্তু এটি খুবই অল্প টাকা । বর্তমানে জন্ম নিবন্ধন করা খুব সহজ হয়ে দাড়িয়েছে । জন্ম নিবন্ধন করার ‍উপায়

শুরু থেকেই বাংলাদেশে জন্ম নিবন্ধন করার ক্ষেতে সশরীরে উপস্থিত হয়ে জন্ম নিবন্ধনের জন্য আবেদন করতে হয়। এজন্য আবেদনকারীকে অবশ্যই নির্দিষ্ট কার্যলয় যেমনঃ ইউনিয়ন পরিষদ / পৌরসভা / সিটি কর্পোরেশন যে যেখানে আওতায় বসবাসরত তাকে সেখানেই যেতে হবে এবং জন্ম নিবন্ধনের জন্য নির্দিষ্ট ফরম সংগ্রহ করতে হবে । নিচে একটি সাংকেতিক ফরম দেখানে হল ।

জন্ম নিবন্ধন ফরম ( অনলাইনে জন্ম নিবন্ধন করার ‍উপায় )
জন্ম নিবন্ধন ফরম ( অনলাইনে জন্ম নিবন্ধন করার ‍উপায় )

ফরম সংগ্রহ করার পর উক্ত ফরমটি ‍নিখুত ভাবে খুব সতর্কতার সহিত মনোযোগ দিয়ে পূরণ করুন ।

সুবিধার্থে নিয়ম বলে দেওয়া হল , নিয়মগুলো ফলো করুন ।

  • ১নং ঘরে শিশুর জন্ম তারিখ সংখ্যায় ও কথায় লিখতে হবে । এর ডান পাশে আবেদনকারীর লিঙ্গ নির্বাচন করতে হবে এবং নিচে জন্মস্থানরে ঠিকানা লিখতে হবে ।
  • ২নং ঘরে জন্ম নিবন্ধনরে জন্য আবেদনকারী শিশুর পিতা ও মাতার নাম এবং তাদের জাতীয়তা উল্লেখ করতে হবে ।
  • ৩ ও ৪ নং ঘরে শিশুর স্থায়ী ও বর্তমান ঠিকানা পর্যায়ক্রমে উল্লেখ করতে হবে ।
  • শিশু বা আবেদনকারীর যদি কোন শারীরিক প্রতিবন্ধকতা থাকে তাহলে ৫ নং ঘরের প্রতিবন্ধকতা সমূহে ঠিক চিহ্ন দিতে হবে ।
  • ৬নং ঘরে অভিবাবক তথা পিতা বা মাতা বা যিনি আবেদন করে দিচ্ছেন তার স্বক্ষর , নিবন্ধনকারীর সাথে তার সম্পর্ক ও আবেদনের তারিখ উল্লেখ করতে হবে ।
  • ৭নং ঘরে শিশু যদি ০-৫ বছরের হয়ে থাকে তাহলে একটি কলাম পূরণ করলেই হবে । বয়স যদি ৫ এর বেশি হয় তাহলে ফরমে উল্লেখিত নির্দেশনা অনুযায়ী তিনটি কলামই পূরণ করতে হবে ।
  • ৮নং ঘরটি আবেদনকারীকে পূরণ করতে হবে । এটি নিবন্ধকের কার্যলয় কর্তৃক পূরণ করা হবে ।

জন্ম নিবন্ধন ফরম পূরণের পর তা নির্ধারিত ডেস্কে জমা দিতে হবে । জমা নেওয়ার পর সেখান থেকে একটি স্লিপ সংগ্রহ করতে হবে এবং জন্ম নিবন্ধন পাওয়ার পূর্ব পর্যন্ত তা সংরক্ষণ করে রাখতে হবে । প্রাপ্ত স্লিপটি হচ্ছে জন্ম নিবন্ধন ফরমের ৮নং ঘরটি ।

জন্ম নিবন্ধন সংগ্রহের জন্য উক্ত কার্যলয় হতে দেওয় নির্দিষ্ট তারিখে সংরক্ষণ করা স্লিপটি নিয়ে যেতে হবে । স্লিপটি দেখালেই জন্ম নিবন্ধন সনদটি পাওয়া যাবে ।

অনলাইনে জন্ম নিবন্ধন করার ‍উপায় ।

জন্ম নিবন্ধন করতে কত টাকা লাগবে?

দেশ থেকে আবেদরন ক্ষেত্রেঃ

জন্মের ৪৫ দিন পর‌্যন্ত বিনামূল্যে । বয়স ৪৫ দিন থেকে ৫ বছর হলে ২৫ টাকা । বয়স ৫ বছরের বেশি হলে ৫০ টাকা ।

বিদেশ থেকে আবেদরন ক্ষেত্রেঃ

জন্মের ৪৫ দিন পর‌্যন্ত বিনামূল্যে । বয়স ৪৫ দিন থেকে ৫ বছর হলে ১ মার্কিন ডলার । বয়স ৫ বছরের বেশি হলে ১ মার্কিন ডলার ।
জন্ম ও মৃত্যু নিবন্ধন ফিস
জন্ম ও মৃত্যু নিবন্ধন ফিস

জন্ম নিবন্ধন সংক্রান্ত প্রচলিত প্রশ্নাবলী ও তার উত্তর ।

১) একই ব্যক্তি কি একাধিকবার জন্ম নিবন্ধন করতে পারে?

উত্তরঃ না, এটি দন্ডনীয় অপরাধ ।

২) বিবাহিত নারীর জন্ম নিবন্ধনে কি স্বামীর নাম লিখা যাবে?

উত্তরঃ না , এ সুযোগ নেই । পিতা-মাতার নাম এই লিখতে হবে ।

৩) বিদেশে জন্ম গ্রহন করলে দেশে জন্ম নিবন্ধন করা যাবে?

উত্তরঃ অবশ্যই করা যাবে । কিন্তু বাংলাদেশের স্থায়ী নাগরিক হিসেবে প্রমাণ সাপেক্ষে ।

৪) পিতা-মাতার জন্ম নিবন্ধন না থাকলে কি শিশুর জন্ম নিবন্ধন করা যাবে?

উত্তরঃ এক্ষেত্রে দুটি নিয়ম আছে । জন্ম যদি ২০০১ এর পর হয় তাহলে অবশ্যই পিতা-মাতার জন্ম নিবন্ধন থাকতে হবে । আর যদি ২০০১ এর পূর্বে হয় তাহলে পিতা-মাতার জন্ম নিবন্ধন ছাড়াও জন্ম নিবন্ধরে জন্য আবেদন করা যাবে ।

অনলাইনে জন্ম নিবন্ধন করার ‍উপায়

নিচের ছবিতে দেখুনঃ

অনলাইনে জন্ম নিবন্ধন এর আবেদন করতে হবে https://bdris.gov.bd/ লিংকে গিয়ে ।

অনলাইনে অনলাইনে জন্ম নিবন্ধন করার ‍উপায়
অনলাইনে অনলাইনে জন্ম নিবন্ধন করার ‍উপায়

অনলাইনে অনলাইনে জন্ম নিবন্ধন করার ‍উপায়
অনলাইনে অনলাইনে জন্ম নিবন্ধন করার ‍উপায়
অনলাইনে জন্ম নিবন্ধন আবেদনের প্রক্রিয়া
অনলাইনে অনলাইনে জন্ম নিবন্ধন করার ‍উপায়

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button