বিনোদন

তাসলিমা নাসরিনও পেয়েছিলেন বাড়ি ছাড়ার নির্দেশ

পরিমনি জামিন পেয়ে বাসায় ফিরে দেখলো তার বাড়িওয়ালা তাকে বাড়ি ছেড়ে দিতে বলেছে। এই ঘটনার আরেকবার ঘটেছিলো তাসলিমা নাসরিনের সাথে। পরিমনির সাথে হয়ে যাওয়া একই ঘটনার পর তিনি তার ভেরিফাইড ফেসবুক পেইজে তার কিছু তিক্ত অভিজ্ঞতা প্রকাশ করেছেন। তার ফেসবুক পেইজে তিনি লিখেন-

পরিমনিকে যেমন বাসা ত্যাগের নোটিশ দেওয়া হয়েছে এই ভয়ংকর সময়ের কথা তিনিও জানেন।তখনেই তার মনে পরে যায় ২০০৭ এর ঘটনা।পুলিশ কমিশনার তাজে জানায় মুখ্যমন্ত্রী তাকে দেশ ছাড়ার আদেশ দিয়েছে। তখন তিনি ভাবছেন দেশের মাটির টানে পশ্চিমবঙ্গ ফিরে এসেছিলেন এখন তিনি যাবেন কোথায়!

তখন তিনি বুঝতে পারেন তিনি রাজনীতিবিদ দের থেকে সাহিত্যের রাজনীতিবিদ দের চক্রান্তের শিকার বেশি। তিনি বলেন তিনি অন্যায় করেন নি তাই তিনি রাজ্য বা দেশ ছাড়বেন না তিনি লিখেন মানবতার কথা,মানবাধিকারের কথা । তিনি যখন দেশ ছাড়তে অস্বীকার করেন তখন তাকে ফোন করেন সুনীল গঙ্গোপাধ্যায়। তখনেই তিনি বুঝতে পারেন তার পাশে যাদের থাকার কথা ছিল তারাই নেই, বরং তার বই নিষিদ্ধ করার দাবি জানাচ্ছে।

তিনি এসব দেখে অনুমান করেন বাড়িওয়ালা হয়তো চাপে পড়ে তাকে বাড়ি ছেড়ে দিতে বলেছে। তিনি সেদিন নিজেকে অসহায় মনে করছিলেন।

পরিমনিরও একই অবস্থা হয়েছিল তিনিও কোথায় যাবেন তা নিয়ে চিন্তিত ছিলেন। তিনি বলেন পরিমনির বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করার যেমন লোক আছে তেমন শুভানুধ্যায়ীরাও আছেন। কিন্তু অসহায় অসহায় তাসলিমা নাসরিনের পাশে কেউ না থাকায় প্রথমে রাজ্য ও পরে দেশ ছাড়তে হয়েছিল।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button