প্রচ্ছদ

একটি পরিবারের স্বপ্ন ডুবে গেল একটি নৌকাডুবিতে।

পরিবারের বড় ছেলে ছিলেন আরিফ বিল্লাহ (২০) । এ বছর ভর্তি হয়ে ছিলেন ঢাকা গ্রিন লাইফ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে। চিকিৎসক হওয়াই ছিল তাঁর একমাত্র স্বপ্ন । আরিফকে ঘিরেই ছিল তাঁর পরিবারের অনেক বড় স্বপ্ন। একটি নৌকাডুবি যেন আরিফের পরিবারের স্বপ্নকেও ডুবিয়ে দিল। নৌকাডুবিতে আরিফের মৃ’ত্যু হয়েছে।

গতকাল শুক্রবার সন্ধ্যায় ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বিজয়নগর উপজে’লার পত্তন এলাকায় নৌকাডুবির ঘটনায় এখন পর্যন্ত ২২ জনের লাশ উদ্ধার করেছে ফায়ার সার্ভিস কর্তৃপক্ষ ও স্থানীয় জনগণ । আরিফ ছিলেন ওই নৌকার যাত্রী । প্রত্যক্ষদর্শী ব্যক্তিরা জানান, অনেকেই আরিফকে জাপটে ধরে বাঁচতে চেয়েছিলেন। শেষে জীবন যায় সবার আগে আরিফেরই।

উপজেলার চম্পকনগর গ্রামে আরিফের বাড়ি । বাবা জহিরুল হক ভূঁইয়া ও মা পারভীন ভূঁইয়া উভয়ই সৌদি প্রবাসী। ছেলের মৃত্যুর খবর শুনা মাত্রই তাঁরা দেশে ফিরে এসেছেন। স্থানীয় মডেল উচ্চবিদ্যালয় মাঠে আগামীকাল রোববার আরিফের জানাজা অনুষ্ঠিত হবে।

জানা গেছে, সৌদি আরবের দাম্মাম নগরে আরিফের বাবা ও দুই চাচা ব্যবসা করেন। যৌথ পরিবার তাদের। দুই চাচাও দেশে এসেছেন। তাঁরা বিলাপ করছিলেন আর বলছিলেন একমুহূর্তের মধ্যে সবার স্বপ্ন শেষ হয়ে গেল ।

দুদিন আগে আরিফ সিলেট থেকে ঘুরে এসেছেন বললেন শাহরিয়ার ইসলাম ( আরিফের নিকটাত্মীয় ও বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থী) । বন্ধুকে ল্যাপটপ কিনে দেওয়ার জন্য জেলা শহরে যাচ্ছিলেন আরিফ । আর সেই যাওয়াই তাঁর কাল হলে দাড়ালো ।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button