আন্তর্জাতিকবাংলাদেশবিশেষ সংবাদ

মার্কিন ভিসা নীতিকে এবার অনুসরণ করছে কানাডা

কূটনৈতিক সূত্রে জানা গুরুত্বপূর্ণ একটি তথ্যের প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে সমকাল পত্রিকা । আর তা হলো কানাডা সরকার সবাইকে ভিসা দিলেও বাংলাদেশে মানবাধিকার লঙ্ঘনের সাথে জড়িতদের ভিসা দিবে না। সূত্র হতে জানা যায়, কানাডা কখনোই নিজ দেশের জন্য ক্ষতিকর এমন কাউকে ভিসা দেয় না।

কানাডার ভিসা পেতে হলে আবেদনের সঙ্গে তথ্য দিতে হয় আর সেই তথ্য চাওয়া হয় হাই কমিশন এর কাছে। পরে সেই তথ্য যাচাই বাছাই করে পরে ভিসা প্রদান করে কানাডা সরকার। ব্যাংকে পর্যাপ্ত পরিমান অর্থ জমা না থাকা, দেশটির নাগরিকত্ব না থাকা স্বত্বেও দেশটিতে থেকে যাওয়া, জঙ্গিবাদের সাথে জড়িতসহ আরো বেশকিছু কারণে দেশটি ভিসা আবেদন প্রত্যাখ্যান করে থাকে।

সংশ্লিষ্টরা বিষয়টি কিভাবে বুঝবেন এর উত্তরে তারা বলেন আন্তর্জাতিক জঙ্গি সগঠনের সাথে জড়িতদের ভিসা দেওয়া বন্ধ করে দিয়েছে তারা। আর যখন ভিসা না পাবে তখন তারা নিজেরাই ভিসা না পাওয়ার কারণ বুঝতে পারবে।

জানা গেছে, কানাডা ভিসা নীতির অধীনে পড়ে অনেকই ভিসা পাননি। পরে এ নিয়ে ঢাকার কানাডা হাই কমিশনের কাছে কারণ জানতে চাইলে বৈঠক করে তারা ভিসার প্রক্রিয়াগুলো বুঝিয়ে দেয়। হাইকমিশন সূত্র জানায়, কানাডার সরকারি ওয়েবসাইটে বলা হয়েছে কোন কোন শর্তে দেশটির ভিতরে প্রবেশ করা যাবে তবে কোন কোন ক্ষেত্রে ভিসা পাবেন না এই তথ্যগুলো গোপনীয়। সাধারণত কোন দেশই তা সহজে প্রকাশ করে না।

গত ২৪ মে যুক্তরাষ্ট্র নতুন ভিসা নীতি ঘোষণা করেছে। যেসব বাংলাদেশি বাংলাদেশের গণতান্ত্রিক নির্বাচন প্রক্রিয়াকে বাধাগ্রস্ত করার সাথে জড়িত তাদের ভিসা পাওয়াতে বিধিনিষেধ আরোপ করতে সক্ষম হবে দেশটি। এই তালিকার বর্তমান ও সাবেক কিছু বাংলাদেশি কর্মকর্তা, সরকারপন্থী, বিরোধী রাজনীতিবিদ, আইন অরয়োগকারী সংস্থা, বিচার বিভাগ ও নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যরাও রয়েছে।

তথ্যটি bvnews24. com এ প্রকাশিত হওয়ার পর তা জানতে পেরে dsdnews24. com তা প্রকাশ করেছে ।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button