বানিজ্যপ্রচ্ছদবাংলাদেশ

রোজায় অন্যন্য পণ্যের তুলনায় পেঁয়াজের দাম সহনীয় রয়েছে

গত ১৩ দিন ধরে দিনাজপুরের হিলি স্থলবন্দর দিয়ে পেঁয়াজ আমদানি বন্ধ রয়েছে। তবে পেঁয়াজের দাম বাড়েনি। আগে যে পরিমান পেঁয়াজ আমদানি করা ছিল তা এখনো শেষ হয় নি।

এই কারনে দাম এখনো কমেই আছে। প্রতি কেজি দেশীয় পেঁয়াজ বিক্রি হচ্ছে ২০ টাকায় ও ভারতীয় পেঁয়াজ ১৬ টাকায়। আমদানিকারকরা আশা করছেন পেঁয়াজের মজুত শেষ হলেই আবার নতুন করে আমদানি করা হবে।

হিলি বাজারে আসা এক ক্রেতা জানান, রমজানে সকল পণ্যের দাম বাড়তি। কিন্তু এইবার পেঁয়াজের বাজারে এর বিপরীত অবস্থা।

দাম সহনীয় অবস্থাতেই আছে। আরেক বিক্রেতা জানান, বর্তমানে পেঁয়াজ আমদানি বন্ধ থাকলেও আগের দামেই পেঁয়াজ বিক্রি করা হচ্ছে।

বন্দরের আমদানি-রপ্তানিকারক গ্রুপের সভাপতি বলেন, সরকারি ঘোষণা মতে ২৯ মার্চ পেঁয়াজ আমদানি বন্ধ হবে জানার পরে অনেক আগে থেকেই পেঁয়াজ আমদানি করে রাখা ছিল।

আর এই মজুত পেঁয়াজ শেষ হলে আবার নতুন করে আমদানি শুরু হবে।২৯ মার্চ এই বন্দরে ৬৯০ মেট্রিক টন পেঁয়াজ আমদানি করা হয়েছিল।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button