স্বাস্থ্য

সরকারি হিসাবের চেয়ে ডেঙ্গু রোগীর সংখ্যা প্রায় ২০ গুন বেশি

জেলায় ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে ৫৯ জন মারা গেছে, ১৪২৪০ জন সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন, হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিল ১৫৪৬০ জন।

এই হিসাবের বাইরেও অনেকে আছেন যারা ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে বাড়িতেই সেবা নিয়েছেন। কিন্তু তাদের পরিমান সম্পর্কে সঠিক জানা যায় নি। বিশেষজ্ঞদের ধারণা, যদি ডেঙ্গুতে আক্রান্ত একজন হাসপাতালে ভর্তি হয় তবে এর অনুপাতে বাইরে আরো ২০ জন আক্রান্ত হয়। এই হিসাব অনুযায়ী এই বছর এখন পর্যন্ত ৩ লাখের বেশি মানুষ ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়েছে। গতকাল রাজধানীর এক সেমিনারে এসব কথা বলেন তারা।

সিজিএস এর চেয়ারম্যান বলেন,ডেঙ্গু আক্রান্তের সরকারি হিসাবের পরিসংখ্যানে মাত্র ৪১ টি হাসপাতালে ভর্তি হওয়া রোগীর তথ্য থেকে হিসাব নেওয়া হয়েছে যার মাধমে সংক্রমণের সঠিক সংখ্যা প্রকাশ হয় না। স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের ১৮ সেপ্টেম্বর দেওয়া তথ্য অনুযায়ী শেষ ২৪ ঘন্টায় হাসপাতালে ডেঙ্গু রোগী ভর্তি হয়েছে ২৩২ জন।

ডেঙ্গু নিয়ন্ত্রণে ব্যার্থতার কারণ হিসেবে ৪ টি কারণকে দায়ী করেছেন আইইসিডিয়ার এর সাবেক মুখ্য বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা তৌহিদ উদ্দিন আহমদ। তিনি বলেন ডেঙ্গু প্রতিরোধে লক্ষ্য,নীতিমালা, নির্দেশনাবলি ও কর্মপরিকল্পনার যথেষ্ট অভাব রয়েছে।

গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা বলেন, একটা মশারি কিন্তে ২০০ টাকা লাগে৷ এই পরিস্থিতিতে যখন সরকারকে প্রস্তাব দেওয়া হলো যেন ১ কোটি মশারি বিনামূল্যে বিতরণ করা হয় তখন সরকার এতে কোনো পাত্তা দেয় নি। তিনি সরকারি কর্মকর্তাদের উদ্দেশ্য বলেন, চুরি করবেন কিন্তু একটু কম করেন। মশার জন্য কার্যকর ওষুধ আনেন।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button